মঙ্গলবার, জানুয়ারী ১৮, ২০২২ | ৪ মাঘ ১৪২৮

একদিনে বাজ পড়ে রাজ্যে মৃত্যু ২৭ জনের। মৃতদের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর আশ্বাস সরকারের


  • Logo
  • মঙ্গলবার জুন ৮, ২০২১
একদিনে বাজ পড়ে রাজ্যে মৃত্যু ২৭ জনের। মৃতদের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর আশ্বাস সরকারের
620 views

ইতিমধ্যেই উত্তরবঙ্গে পা দিয়েছে বর্ষা। হাওয়া অফিস বলছে, দক্ষিণবঙ্গে বর্ষা আসতে এখনও কিছুদিন দেরি। কিন্তু এর মধ্যেই প্রায় প্রতিদিন বিকেলের পর থেকে কলকাতা-সহ একাধিক জেলায় বজ্রবিদ্যুৎ-সহ ঝড়বৃষ্টি হচ্ছে। বৃষ্টির পরিমাণ হালকা থেকে মাঝারি হলেও উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে বজ্রপাত। কারণ বিকেল হলেই শুরু হয়ে যায় প্রচণ্ড বাজ পড়া। আর এতেই ভয় দেখা দিয়েছে। শুধুমাত্র সোমবারই রাজ্যের ৫ জেলায় বজ্রপাতে মৃত্যু হয়েছে মোট ২৬ জনের। কিন্তু এত বজ্রপাতের কারণ কি? আবহাওয়ার কোনও বদল, নাকি তার সঙ্গে জুড়েছে পরিবেশেরও কোনও বদল?

সাধারণত কিউমুলোনিম্বাস মেঘ থেকে বজ্রপাত ও বৃষ্টি হয়। সেই কারণে এই মেঘকে বজ্রগর্ভ মেঘও বলা হয়ে থাকে। গত কয়েক বছর ধরে এপ্রিল-মে মাসে বাংলায় এই বজ্রগর্ভ মেঘের পরিমাণ বেড়েছে। তার অন্যতম কারণ বাতাসে জলীয় বাষ্পের আধিক্য আর তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়া। আর তাপমাত্রা বৃদ্ধির সঙ্গে বাড়ছে দূষণের মাত্রা। ফলে বজ্রগর্ভ মেঘ তৈরি হচ্ছে। কিছুদিন আগেই ওড়িশা উপকূলে আছড়ে পড়েছিল অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ইয়াস। তার প্রভাব পশ্চিমবঙ্গে না পড়লেও এই ঘূর্ণিঝড়ের ফলে বঙ্গোপসাগর থেকে প্রচুর পরিমাণে জলীয় বাষ্প ঢুকেছে রাজ্যে। সেই সঙ্গে মে মাস থেকেই বাংলায় বেড়েছে তাপমাত্রা। সব মিলিয়ে স্থানীয় বজ্রগর্ভ মেঘ হয়েছে। আর তার ফলেই প্রায় প্রতিদিনই রাজ্যে বিকেলের পরে শুরু হচ্ছে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি।

এই প্রসঙ্গে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাটমসফেরিক সায়েন্স বিভাগের অধ্যাপক সুব্রত মিদ্যা বলেন, ”কিউমুলোনিম্বাস বা বজ্রগর্ভ মেঘ থেকেই সাধারণত বজ্রপাত হয়। পরিবেশে দূষণ বেড়ে যাওয়ায় তাপমাত্রা আগের থেকে অনেক বেশি থাকছে। ফলে বজ্রপাতের পরিমাণ বাড়ছে। এই বজ্রপাত সাধারণত অল্প জায়গায় মধ্যে ‘ক্লাউড টু গ্রাউন্ড’ অর্থাৎ মেঘ থেকে মাটির দিকে হচ্ছে।”
কিন্তু বজ্রপাতে মানুষের মৃত্যুর সংখ্যা কেন এত বাড়ছে? এই প্রসঙ্গে আবহাওয়াবিদরা বলছেন, শহরের থেকে গ্রামীণ এলাকায় বজ্রপাতে মৃত্যু বেশি হচ্ছে, কারণ ফাঁকা মাঠে চাষের কাজে গিয়ে মৃত্যু হচ্ছে অনেকের। এছাড়া কৃষিক্ষেত্রে ব্যবহার করা হচ্ছে উন্নত যন্ত্রপাতি। আর এই সব যন্ত্রে বিদ্যুৎ আকর্ষিত হয়। মানুষকে আরও বেশি সচেতন হতে হবে বলেই মনে করছেন আবহাওয়াবিদরা।

মন্তব্য:

মন্তব্য বন্ধ আছে।

অনুরূপ খবর

মেলা দিয়েই খেলা শুরু হবে !
  • শনিবার ফেব্রুয়ারী ২৭, ২০২১
মেলা দিয়েই খেলা শুরু হবে !