মঙ্গলবার, জুলাই ০৫, ২০২২ | ২০ আষাঢ় ১৪২৯

কোভিডের তৃতীয় ঢেউ থেকে কতটা সাবধানী হওয়া উচিত শিশুদের বিষয়ে, কী বলছেন চিকিৎসকেরা


  • Logo
  • মঙ্গলবার আগস্ট ২৪, ২০২১
কোভিডের তৃতীয় ঢেউ থেকে কতটা সাবধানী হওয়া উচিত শিশুদের বিষয়ে, কী বলছেন চিকিৎসকেরা
431 views

কোভিডের তৃতীয় ঢেউয়ে শিশুদের আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কাও রয়েছে। সদ্য প্রকাশিত কেন্দ্রীয় সরকারের রিপোর্ট অনুযায়ী, শিশুদের কো-মর্বিডিটি রয়েছে, তাই তাদের চিন্তার কারণ বেশি বলে দাবি করা হচ্ছে এই রিপোর্টে। কোভিড আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি শিশুদের মধ্যে ৬০ থেকে ৭০ শতাংশেরই শরীরে কো-মর্বিডিটি থাকে। তবে আগের দুই ঢেউয়ের থেকে তৃতীয় তরঙ্গে শিশুদের বেশি আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকলেও যে শুধুমাত্র শিশুরাই আক্রান্ত হবে, তা ভাবা ঠিক নয়। দেশে এখনও শিশুদের টিকাকরণ শুরু হয়নি। তাই ছোটদের কোভিড-আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থেকেই যাচ্ছে।

অন্য দিকে, শিশুরা কোভিড-আক্রান্ত হলে তাদের চিকিৎসা ব্যবস্থা কি হবে তা নিয়েও রয়েছে চিন্তা। কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউয়ে দেশের বেশ কিছু হাসপাতালে অক্সিজেন এবং শয্যার সমস্যা দেখা দিয়েছিল। কিন্তু তৃতীয় ঢেউয়ে শিশুরা বেশি আক্রান্ত হলে মা-বাবাদের যাতে শিশুর চিকিৎসা করাতে হয়রানির শিকার না হতে হয় তার জন্য আগে থেকেই হাসপাতালের পরিকাঠামোর প্রস্তুতি সেরে রাখতে হবে।বিশেষজ্ঞদের মতে, প্রথম ঢেউয়ে যাদের শরীরে কো-মর্বিডিটি ছিল তাঁদের পাশাপাশি বয়স্করাও করোনা-আক্রান্ত হয়েছিলেন। দ্বিতীয় ঢেউয়ে মধ্যবয়স্করা বেশি কোভিড-আক্রান্ত হয়েছিলেন।

তাই যেহেতু ওই দুই বয়সীদের কোভিড হয়ে গিয়েছে তাই তৃতীয় ঢেউয়ে শিশুদের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। এই তত্ত্বের উপর ভিত্তি করেই শিশুদের আক্রান্ত হওয়ার কথা বলা হয়েছে। ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চের চতুর্থ সেরো সার্ভে রিপোর্ট অনুযায়ী আইসিএমআরের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, ‘‘অধিকাংশ শিশুর শরীরেই যে হেতু কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের অ্যান্টিবডি তৈরি হয়েছে, তাই এখন যাদের শরীরে অ্যান্টিবডি নেই তাদের নিয়েই বেশি আশঙ্কা। অ্যান্টিবডি থাকা সত্ত্বেও যদি কেউ কোভিডে আক্রান্ত হয় তাদের রোগের ভয়াবহতাও হবে কম। তবে এই ঢেউয়ে শিশুরাই আক্রান্ত হবে এই ধারণার কোনও বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই।’’

অন্যদিকে কোভিড থেকে সন্তানকে রক্ষা করতে যেসব বিষয়গুলো মাথায় রাখতে হবে এই বিষয়ে, শিশু চিকিৎসক প্রবীর ভৌমিক জানিয়েছেন, ‘‘৫০শতাংশের বেশি শিশুর শরীরে অ্যান্টিবডি থাকলেও মাথায় রাখতে হবে, দেশের বিশাল সংখ্যক শিশুর শরীরেই কোভিডের অ্যান্টিবডি তৈরি হয়নি। তাই সেই সব শিশুদের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। পাশাপাশি কোভিড নতুন কোনও রূপে আক্রমণ চালাতে পারে। সেই রূপের ভয়াবহতা এখনও আমরা জানি না।’’
তবে পরিসংখ্যান অনুযায়ী প্রথম ঢেউয়ের থেকে বেশি শিশু দ্বিতীয় ঢেউয়ে আক্রান্ত হয়েছে। একই ভাবে তৃতীয় ঢেউয়েও তুলনামূলক ভাবে বেশি শিশুর আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

মন্তব্য:

মন্তব্য বন্ধ আছে।

অনুরূপ খবর