মঙ্গলবার, মে ১৭, ২০২২ | ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

জেইই এবং নিট পিছিয়ে দেওয়ার আর্জি নিয়ে শুক্রবার সুপ্রিম কোর্টে রিভিউ পিটিশন ৭ রাজ্যের।


  • Logo
  • শুক্রবার আগস্ট ২৮, ২০২০
জেইই এবং নিট পিছিয়ে দেওয়ার আর্জি নিয়ে শুক্রবার সুপ্রিম কোর্টে রিভিউ পিটিশন ৭ রাজ্যের।
720 views

আগামী মঙ্গলবার, ১ সেপ্টেম্বর থেকে ৬ সেপ্টেম্বর শুরু হবে জেইই। নিট হওয়ার কথা ১৩ সেপ্টেম্বর।আর এই জেইই এবং নিট পিছিয়ে দেওয়ার আর্জি জানিয়ে আজ, শুক্রবার মধ্যাহ্নভোজের আগেই সুপ্রিম কোর্টে রিভিউ পিটিশন দাখিল করা হবে বলে খবর।

গত বুধবারই কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর ভার্চুয়াল বৈঠকে বাংলা ছাড়াও আরও ৬ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী উপস্থিত ছিলেন। এই বৈঠকেই এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি প্রস্তাব দেন, ছাত্রছাত্রীদের স্বার্থের কথা ভেবেই পুনর্বিবেচনার আর্জি জানিয়ে সকলের সুপ্রিম কোর্টে যাওয়া উচিত। সকলেই মুখ্যমন্ত্রীর এই প্রস্তাবকে সমর্থন করেছেন । পশ্চিমবঙ্গ ছাড়া বাকি রাজ্যগুলি হল: পাঞ্জাব, মহারাষ্ট্র, ঝাড়খণ্ড, ছত্তিসগড়, রাজস্থান ও পুদুচেরি৷ ওই ছ’টি রাজ্যেও বিজেপি সরকার নেই এবং ওই রাজ্যগুলির মুখ্যমন্ত্রীরা সনিয়া গান্ধী ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকা বুধবারের ভার্চুয়াল বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।
প্রসঙ্গত, চলতি সপ্তাহের শুরুতেই মহারাষ্ট্রের পর্যটন মন্ত্রী আদিত্য ঠাকরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি লিখে ছাত্রছাত্রী স্বাস্থ্যের ঝুঁকির কথা তুলে পরীক্ষা পিছোনোর ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত হস্তক্ষেপ চেয়েছিলেন।সাথে ওডিশার মুখ্যমন্ত্রী প্রশ্ন তুলেছেন, করোনা আবহে সব যানবাহন বন্ধ থাকায় পরীক্ষার্থীরা কী ভাবে পরীক্ষার হলে পৌঁছবেন? তিনিও একান্ত অনুরোধ জানান, সামগ্রিক অবস্থার কথা বিবেচনা করে করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে গেলেই পরীক্ষার আয়োজন করা হোক৷ অন্যদিকে দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়, জেএনইউ, বিএইচইউ, আইআইটি দিল্লি এবং লন্ডন ইউনিভার্সিটি, ক্যালিফোর্নিয়া ইউনিভার্সিটির ওই শিক্ষাবিদদের মতে, ‘কেউ কেউ তাঁদের রাজনৈতিক স্বার্থ চরিতার্থ করার জন্য পড়ুয়াদের ভবিষ্যৎ নিয়ে খেলতে চাইছেন।’ সমস্ত রকম সতর্কতা অবলম্বন করেই নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী পরীক্ষা নেওয়া উচিত বলে মনে করেন ওই শিক্ষাবিদরা । এই পরিস্থিতিতে আজ সুপ্রিম কোর্টে এই সংক্রান্ত মামলায় কী ভূমিকা নেয়, তা নিয়ে কৌতূহল তৈরি হয়েছে।

এবিষয়ে পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘আমরা পরীক্ষার বিরুদ্ধে নই। আমরা বলছি, করোনার বিপদের সময়ে পরীক্ষা না-নিয়ে তা পিছিয়ে দেওয়া হোক।’ বুধবার মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন সুপ্রিম কোর্টের ওপর আস্থা আছে। তাছাড়াও আদালত পরীক্ষায় সবুজ সংকেত দিলেও সরকার রায় পুনর্বিবেচনা করার আর্জি জানাতেই পারে, অতীতে এর একাধিক দৃষ্টান্ত আছে।

মন্তব্য:

মন্তব্য বন্ধ আছে।

অনুরূপ খবর